সহবাসের সময় কি থুথুব্যবহার করা, যৌন মিলনের সময় স্ত্রীর যোনী পিচ্ছিল করার জন্য কি থুথু ব্যবহারকরা যাবে?,সহবাসের সময় থুথু ব্যবহার করা যাবে কি না ,



বিষয়: সহবাসে থুথু ব্যবহার,যৌন মিলনের সময় স্ত্রীর যোনী পিচ্ছিল করার জন্য কি থুথু ব্যবহার করা যাবে?,সহবাসের সময় থুথু ব্যবহার করা যাবে কি না ,সহবাসের সময় কি থুথু ব্যবহার করা, থুথু দিয়ে স্ত্রী সহবাস করলে কি ক্ষতি হয় জেনে নিন-থু থু,সহবাসের সময় কি থুথু ব্যবহার করা যাবে?,সেক্সের সময় লালা লুব্রিক্যান্ট হিসাবে ব্যবহার করা কি নিরাপদ,

সহবাসের সময় থুথু ব্যবহার ব্যবহার করা যাবে কিনা সেটা নিয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিভিন্ন মতামত প্রচলিত রয়েছে। প্রাচীনকালে যখন লুব্রিকেন্ট জেল বলে কোন কিছু ছিল না তখন সহবাসের সময় থুথু ব্যবহার করা হতো। সে সময় মানুষ এগুলো সম্পর্কে খুব বেশি সচেতন ছিল না। কিন্তু চিকিৎসা বিজ্ঞানের প্রসারের ফলে জীবনের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সম্পর্কে মানুষ নতুন করে জানতে পারছে।

(ads1)

সহবাসের সময় থুথু ব্যবহার করা যাবে কি?

যৌন মিলনের সময় স্ত্রীর যোনি পিচ্ছিল করার জন্য থুথু ব্যবহার করা উচিত নয়। আমেরিকান সোসাইটি ফর রিপ্রোডাকটিভ মেডিসিন এর গবেষণা থেকে বলা হয়েছে যে যৌন মিলনের সময় থুথু কিংবা বাজারের নিম্নমানের লুব্রিকেন্ট জেল ব্যবহার করলে যোনির ভেতর দিয়ে শুক্রাণুর চলাচলের গতি একেবারে কমে যায়। এর ফলে দেখা যায় যে অনেকের সন্তান ধারণ করা সম্ভব হয় না।

অত্যাধিক পরিমাণে থুথু এবং নিম্নমানের জেল ব্যবহার করলে অনেক সময় যোনিতে সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এর ফলে যৌন সংক্রান্ত বিভিন্ন রোগ দেখা দেয় যা সন্তান ধারণের সম্ভাবনা অনেকাংশে কমিয়ে দেয়।

তাছাড়া এটা একটা অভিরুচির ব্যাপারও বটে। তবে অনেক সময় দেখা যায় যে সহবাসে জেল ব্যবহার করার ফলে অনেকের অ্যালার্জিজনিত সমস্যা হয়ে থাকে।

(ads2)


তাহলে কি ব্যবহার করা উচিত

লুব্রিকেন্ট কিংবা থুথু যৌন মিলনের সময় ব্যবহার করা হয় যোনি পিচ্ছিল করতে। কিন্তু মিলনের পূর্বে যদি ফোর প্লে করা হয় তাহলে জনি এমনিতেই রসে পিচ্ছিল হয়ে যায়। কিভাবে ফোরপ্লে করতে হয় সে সম্পর্কে আমাদের ওয়েবসাইটে লেখা রয়েছে। যদি কারো ক্ষেত্রে ফোরপ্লে করার পরেও কিংবা দীর্ঘ সময় মিলনের ফলে জনি শুকনো হয়ে যায় তবে সেক্ষেত্রে ভালো মানের লুব্রিকেন্ট জেল ব্যবহার করতে হবে। কোন ধরনের লুব্রিকেন্ট জেল আমাদের ব্যবহার করা উচিত সেটা জেনে নিতে পারেন আমাদের ওয়েবসাইট থেকে।

সতর্কতাঃ যে কোন ঔষধ সেবনের পূর্বে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। সুস্থ থাকুন।

Post a Comment

Previous Post Next Post

POST ADS1

POST ADS 2