Phytomenadione

ঔষধের কার্যাবলী

Health City Life এর সর্বশেষ আপডেট পেতে Google News অনুসরণ করুন

Material: There is 0.2 ml solution in each Ampole so that phytomenadione BP2 mg. Existing It is used for oral, IM, or IV (especially for children).

Instructions: Resistant to the newborn and used in hemoglobic conditions. Hemorrhage or its risk due to acute hypoprofibrinemia (lack of fatigue, fat, fat and), excessive use of the comerine antioxidants, phenyl beetzone and hypovitaminosis (jaundice, liver and intensity of inactivation, long-term antibiotics, sulfonamide, sulfonamide and Salicylate use). Vitamin K deficiency bleeding.
Doses: Moderate hemorrhage or hemorrhage tendency: In the case of newborns, usually with birth or slightly after 2m. GRA The levels are to be eaten in the mouth. Next 4th-5th, 2mg of day And on 28th-30th day more 2 mg Have to be fed in the mouth. Ivy / IM can be given at the same level if not fed to mouth. 5-10 mg for children under one year May be fed to the mouth. 
Side effects: Some anaphylactoid reactions and Venus eritation information are found in the use of phytomondine injection.
 Use during pregnancy and breastfeeding: Vitamin K-1 Placenta or very little amount of milk in the milk. The risk of disease and vitamin K-1 can be advised based on the requirements.
উপাদান : প্রতিটি অ্যাম্পুলে আছে ০.২ মি.লি সলিউশন যাতে ফাইটোমেনডিওন বিপি ২ মি.গ্রা. বিদ্যমান। এটি ওরাল, আইএম অথবা আইভি ব্যবহারের জন্য (বিশেষতঃ শিশুদের জন্য ব্যবহার্য)।

নির্দেশনা : নবজাতকের ক্ষেত্রে প্রতিরোধক হিসাবে ও হেমোরেজিক অবস্থায় ব্যবহার্য। তীব্র হাইপোপ্রোথ্রম্বিনেমিয়ার (ক্লটিং ফ্যাক্টর ওও, ঠওও, ওঢ ও x এর অভাব) কারনে সৃষ্ট হেমোরেজ বা তার ঝুঁকি, কোমারিন জাতীয় অ্যান্টি কোয়াগুলেন্টের অতিমাত্রায় ব্যবহার, ফিনাইল বিউটাজোন এবং হাইপোভিটামিনোসিস-কে (জন্ডিস, লিভার ও ইন্টেসটাইনের অকার্যকারিতা, দীর্ঘমেয়াদী অ্যান্টিবায়োটিক, সালফোনামাইড, সালফোনামাইড ও স্যালিসাইলেটের ব্যবহার)। ভিটামিন কে এর অভাবজনিত রক্তক্ষরণে ব্যবহার্য।

সেবনবিধি ও মাত্রা : মৃদু হেমোরেজ বা হেমোরেজের প্রবণতা: নবজাতকের ক্ষেত্রে সাধারণত: জন্মের সঙ্গে সঙ্গে বা সামান্য পরে ২ মি. গ্রা. মাত্রায় মুখে খাওয়াতে হয়। পরবর্তীতে ৪র্থ-৫ম, দিনে ২ মি.গ্রা. ও ২৮ তম- ৩০তম দিনে আরো ২ মি.গ্রা. মুখে খাওয়াতে হবে। মুখে খাওয়ানো না গেলে আইভি/আইএম পথে একই মাত্রায় দেয়া যায়। এক বছরের বেশি বয়সের শিশুর ক্ষেত্রে ৫-১০ মি.গ্রা. পর্যন্ত মুখে খাওয়ানো যেতে পারে।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া : ফাইটোমেনাডিওন ইঞ্জেকশন ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু অ্যানাফাইল্যাকটয়েড প্রতিক্রিয়া ও ভেনাস ইরিটেশন এর তথ্য পাওয়া গেছে।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার : ভিটামিন কে-১ প্লাসেন্টা বা মায়ের দুধে খুব অল্প পরিমানে প্রবেশ করে। রোগের ঝুঁকি ও ভিটামিন কে-১ এর প্রয়োজনীয়তার উপর ভিত্তি করে পরামর্শ দেয়া যেতে পারে।

Health City Life এর সর্বশেষ আপডেট পেতে Google News অনুসরণ করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.