সঙ্গমের সময় কুকুরের লিঙ্গ আটকে যায় কেন মানুষের কি এমন আটকে যেতে পারে

গোপন সমস্যা সমাধান স্বাস্থ্য

 

কেন কুকুররা সঙ্গমের সময় আটকে যায় (কুকুর) সিওটাস / যৌন মিলন

দয়া করে তাদের আলাদা করার চেষ্টা করবেন না।

আমরা সকলেই এই দৃশ্যের সাথে পরিচিত। আসুন বোঝার চেষ্টা করি কুকুররা যখন সঙ্গম করে তখন কেন আটকে থাকে (ক্যাপুলেটরি টাই নামে পরিচিত)।

কুকুররা দু’তিন ধাপে (মাউন্টিং, পেইন্ট্রেটিং এবং ইজাকুলেটিং) সাথী হয়, যার দ্বিতীয়টি ‘আটকে থাকা’ পদক্ষেপ। যখন একটি পুরুষ কুকুর বীর্য নির্গত করে তখন তার যৌনাঙ্গে ‘বাল্বাস গ্ল্যান্ডিস’ শক্ত হয়ে যায় এবং একই সাথে মহিলা সংক্রমণের যোনির পেশী এসলস্ট হিসাবে, উভয় পেশী শিথিল না হওয়া অবধি পুরুষ কুকুরটি যৌনাঙ্গ থেকে যৌনাঙ্গটি অপসারণ করতে পারে না। এই সময়কাল 5 থেকে 45 মিনিট অবধি থাকতে পারে,

সুতরাং কেউ যখন তাদের যৌনাঙ্গে কোনও কিছু দিয়ে দৌড়াতে বা আঘাত করতে বাধ্য করে তখন কী ঘটে? কুকুরগুলির পক্ষে এটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক হয় যদি তারা জোর করে আলাদা করা হয়, বিশেষ করে যখন আপনি তাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করেন বা তাদের পালাতে বাধ্য করেন।

এটি সত্য যে কখনও কখনও পেশীগুলি দ্রুত শিথিল হয় তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে পেশীগুলি ভেঙে যায় এবং কিছু ক্ষেত্রে কুকুরগুলি তাদের যৌন ক্ষমতা হারাতে থাকে।

কুকুররা যখন সঙ্গম করছে তখন তাদের দয়া করে উপেক্ষা করুন। তারা ক্রিয়াকলাপ শেষ করবে এবং তাদের আলাদা হয়ে যাবে।

মানুষের মতো পৃথিবীতে প্রতিটি প্রাণীর সুন্দর ভাবে বেচে থাকার অধিকার আছে। তাদেরকে এই অধিকার দেওয়া আমাদের মানবিক দায়িত্ব। এই দিক বিবেচনা করে কুকুরদের এমন পরিস্থিতিতে তাদের সাথে অন্যায় আচরণ করবেন না। এবং অন্যদের ও করতে দিবেন না। অনেক সময় বাচ্চারা বিষয়টি না বুঝে কুকুরদের উত্ত্যক্ত করে। তাদেরকে বুঝিয়ে বলে সচেতন করা আপনার আমার এবং সকল সুস্থ মস্তিষ্কের মানুষের দায়িত্ব!

কুকুর মিলনের সময় আটকে যায় কেন ? ভাদ্রমাসের কুকুর বা কার্তিক মাসের কুকুর বলে একটা গালি আমরা অনেকেই শুনে থাকি।বেশিমাত্রায় কামাতুর মানুষদের সঠিক ভাষায় গালি দিতে শব্দগুলোর ব্যাপক ব্যবহার আছে।

ভাদ্র বা কার্তিক মাসে রাস্তাঘাট বা বাড়ির উঠানে সবার চোখে যে চিত্রটা পরে তা হলো সঙ্গমরত অবস্থায় আটকে পরা কুকুর।সবার মাথায় এই প্রশ্নটি পোকার মত কিলবিল করে “কুকুর মিলনের সময় আটকে যায় কেন ?” কিন্তু লজ্জার ভয়ে কাউকে বলতে পারে না। আজ এ সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান লাভ করতে হলে লেখাটি পড়ুন।এখন আপনার সামনে তো কেউ নেই তাই লজ্জা না করে চুপিচুপি পড়া চালিয়ে যান।


বিঃদ্রঃ ভালোকরে বুঝানোর জন্যে বায়োলজিক্যাল ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে। অনেকের কাছে অশালীন মনে হতে পারে।তাই আপনার বায়োলজি সম্পর্কে অশ্লীলতার চুলকানি রোগ থাকলে দয়া করে পড়া বাদ দিন। আপনার লজ্জাবোধে সামান্য আঘাত লাগলেও আমি লজ্জিত, দয়াকরে মাফ করবেন।আপনি আরো পড়তে পারেন – 

কুকুরের পুং লিঙ্গের বিশেষ গঠন

কুকুরের পুং প্রজননতন্ত্র অন্যান্য স্তন্যপায়ী প্রাণিদের থেকে কিছুটা ব্যাতিক্রম। এদের পুং লিঙ্গ স্বাভাবিক অবস্থার একটি চামড়ার আবরণে আবৃত থাকে।উত্তেজিত অবস্থায় পুং লিঙ্গ চামড়ার আবরণ থেকে বের হয়ে আসে। এদের পুং লিঙ্গের তলদেশ বরাবর লম্বা ও সরু একটি হাড় থাকে।
এই হাড়কে বলে ব্যাকুলাম(Baculum) বা পেনাইল বোন(Penile Bone)। আবার পুং লিঙ্গের সামনের দিকে তলদেশ বরাবর মাংসপেশি নির্মিত একধরনের বিশেষ গ্রন্থি থাকে। এই গ্রন্থিকে বলে বাল্বাস গ্লান্ডিস(bulbus glandis) বা পেনাইল বাল্ব(penile bulb) অথবা “Knot”।
এই বাল্বাস গ্লান্ডিস এর কারণে কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়।এ ধরণের হাড় ও বাল্বাস গ্লান্ডিস আর কোন স্তন্যপায়ী প্রাণিতে দেখা যায় না।শুধু কুকুর গোত্রীয় প্রাণী যেমন- নেকড়ে,পাতিশিয়াল, খেঁকশিয়াল,হায়েনা ইত্যাদি প্রাণিতে দেখা যায়।

কুকুরের পুং প্রজনন তন্ত্র
কুকুরের পুং প্রজনন তন্ত্র

কুকুরের মিলনের বিভিন্ন পর্যায়

পুরুষ ও স্ত্রী কুকুরের মিলন তিনটি ধাপে শেষ হয়। ধাপ গুলো হলো-

১। ইউরেথ্রাল ধাপ(Urethral phase)

এই ধাপে পুরুষ কুকুরের লিঙ্গ হতে এক ধরণের পিচ্ছিল তরল বের হয়। এই পিচ্ছল তরল পুং লিঙ্গকে স্ত্রী কুকুরের প্রজনন অঙ্গে প্রবেশ করতে সাহায্য করে। এই তরলে কোন শুক্রানু থাকে না।প্রায় ৩০ সেকেন্ডের মধ্যেই এই ধাপ শেষ হয়।

কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়
ইউরেথ্রাল ধাপ

২। শুক্রাণু স্খলন ধাপ(Sperm phase)

প্রথম ধাপের পরপরই এই ধাপ শুরু হয়।এটি দুই মিনিট স্থায়ী হয়। এ সময় পুরুষ কুকুরের লিঙ্গ হতে প্রায় এক ঘন মিলি. শুক্রাণু সমৃদ্ধ বীর্য রস ক্ষরিত হয়। এই ধাপের শেষের দিকে বাল্বাস গ্লান্ডিস গ্রন্থির পরিবর্তন শুরু হয়।

কুকুরের শুক্রাণু স্খলন ধাপ
কুকুরের শুক্রাণু স্খলন ধাপ

৩।প্রসস্ট্যাটিক ধাপ(prostatic phase)

এই ধাপে বাল্বাস গ্লান্ডিস গ্রন্থি বড় হতে থাকে ফলে কুকুরের পুং লিঙ্গ স্ত্রী কুকুরের যোনীতে আটকে যায়।এ অবস্থায় পুরুষ কুকুর ইচ্ছা করলেও আর পুং লিঙ্গকে যোনী হতে বের করতে পারে না। এই অবস্থাকে বলে “knotting” বা “Copulation Tie ” বাংলায় বলা হয় “জোড়ালাগা অবস্থা”।

কুকুর জোড়া লাগে কেন
প্রসস্ট্যাটিক ধাপ

এবার পুরুষ কুকুর তার পেছনের পা ঘুরিয়ে স্ত্রী কুকুরের পেছন বরাবর অবস্থান নেয়। এই জোড়ালাগা অবস্থা সর্বোচ্চ ৪৫ মিনিট পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। জোড়ালাগা অবস্হায় পুরুষ কুকুর ২য় বার শুক্রাণু ত্যাগ করে। শুক্রানু ত্যাগ না করা পর্যন্ত এই

জোড়ালাগা অবস্থা শেষ হয় না। পুরুষ কুকুর শুক্রাণু ত্যাগ করার পর বাল্বাস গ্লান্ডিস স্বাভাবিক অবস্হায় ফিরে আসে এবং লিঙ্গ বের হয়ে আসে।

কুকুর সেক্স এর সময় আটকে থাকে কেন?

প্রধানত তিনটি কারণে কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়।

১। পুং লিঙ্গ উত্থানের ভিন্নতা

সকল স্তন্যপায়ী প্রাণির পুং লিঙ্গে দুই ধরণের উত্থানকারী কোষ থাকে। একটি কোষ লিঙ্গ শক্ত হতে সাহায্য করে অন্যটি লিঙ্গকে মোটা ও প্রসারিত হতে সাহায্য করে। পুরুষ প্রাণী যৌণ উত্তেজনা অনুভব করলে এই দুই ধরণের কোষ স্ত্রী প্রাণির যোনিতে প্রবেশের আগেই একসাথে কাজ করে এবং লিঙ্গকে শক্ত ও প্রসারিত করে।
কিন্তু কুকুর গোত্রীয় প্রাণিদের ক্ষেত্রে প্রথমে লিঙ্গ শক্ত হয়ে যোনিতে প্রবেশ করে তারপর যোনীর ভেতর প্রসারিত হয়। লিঙ্গ যখন যোনীর ভেতরে প্রসারিত হয় তখন আর বের করতে পারে না।একারণে কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়।

২।ব্যাকুলাম বা পেনিস বোন এর কার্যকারিতা

কুকুরের পুং লিঙ্গের হাড় ব্যাকুলাম এর উপস্থিতির কারণে লিঙ্গ প্রসারিত না হলেও স্ত্রী কুকুরের যোনিতে প্রবেশ করাতে পারে। কিন্তু যোনীতে প্রবেশ করার পর লিঙ্গ প্রসারিত হলে আর বের করতে পারে না। এই জন্যও কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়।

৩। বাল্বাস গ্লান্ডিস এর কার্যকারিতা

পুরুষ কুকুরের লিঙ্গ স্ত্রী কুকুরের যোনীতে প্রবেশ করার প্রায় ৩মিনিট পর শুক্রাণু স্খলন করে। শুক্রাণু স্খলনের সাথে সাথেই বাল্বাস গ্লান্ডিস পেশিতে রক্ত সরবরাহ বাড়তে থাকে ফলে এটি ধিরে ধিরে ফুলে উঠে গোল বলের মত আকৃতি সৃষ্টি করে।
স্ত্রী কুকুরের যোনীর পেশি(Constrictor Vestibuli Muscles) গুলো এই বাল্বাস গ্লান্ডিস কে শক্ত করে চেপে ধরে। এভাবে একটি তালা চাবির মতো দৃঢ় গঠন সৃষ্টি হয়।
এই অবস্থাকে বলে “Knoting” বা “Copulation Tie”. পুরুষ কুকুর ২য় বার শুক্রানু ত্যাগ না করা পর্যন্ত এই জোড়ালাগা অবস্থা স্থায়ী হয়। উভয় কুকুর চেষ্টা করেও এর আগ পর্যন্ত পরস্পরের থেকে বিচ্ছিন্ন হতে পারে না।
এই অবস্থার কারণে কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়।

জোড়ালাগা অবস্থায় কুকুর কি ব্যথা অনুভব করে?

যখন কুকুর মিলনের সময় আটকে যায় তখন পুরুষ বা স্ত্রী কোন কুকুরের ব্যথা লাগে না বরং দীর্ঘমেয়াদী যৌন তৃপ্তি অনুভব করে। তবে জীবনের প্রথম মিলনের সময় উভয় কুকুর সামান্য ব্যথা অনুভব করে।

কুকুরের মিলনের সময় জোড়া লাগার বিবর্তনিক সুবিধা

আদিম কালে কুকুর যখন বনে বাস করতো তখন এরা দলবদ্ধভাবে বাস করতো। প্রত্যক দলে গোত্রপতি থাকতো। এই গোত্রপতিরা নিজের বংশ বিশুদ্ধ রাখার জন্যে এই Copulation Tie ব্যবহার করতো যাতে মিলনের সময় স্ত্রী প্রাণিটি অন্য পুরুষের শুক্রাণু গ্রহন করতে না পারে।
দ্বিতীয়ত, এই জোড়ালাগা অবস্থার কারণে পুরুষ কুকুর ২য় বার শুক্রানু ত্যাগ করে। এই প্রক্রিয়ায় ফলে কুকুরের সন্তান ধারনের সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়। বিবর্তনের ধারায় কুকুরের বংশ রক্ষায় এই ধরণের প্রজনন পদ্ধতি বিরাট ভূমিকা রাখে।

কুকুরের মিলনের সময় আটকে যাওয়া সম্পর্কে ভ্রান্ত ধারনা

অনেকে বলে মিলনের সময় কুকুর আটকে না গেলে স্ত্রী কুকুর গর্ভবতী হবে না। এটা একটা ভুল ধারণা, কারণ গর্ভবতী হওয়ার জন্য শুক্রানু ও ডিম্বাণুর মিলিত হওয়া প্রধান শর্ত। কুকুর আটকে যাওয়ার আগেই পুরুষ কুকুর শুক্রানু ত্যাগ করে। তাই বলা যায় গর্ভসঞ্চার আটকে যাওয়ার আগেই হয়।
তবে এটুকু বলতে পারেন স্ত্রী কুকুরের গর্ভসঞ্চার হওয়ার সম্ভাবনা শতভাগ নিশ্চিত করে এই আটকে যাওয়া। কিছু ক্ষেত্রে কুকুর
আটকে না গিয়েও গর্ভসঞ্চার করতে পারে একে Slip mating বলে।

জোড়ালাগা কুকুরের প্রতি মানুষের হিংস্রতা

জনসম্মুখে কুকুরের মিলন দেখে অনেকের মধ্যে ঘৃণার উদ্রেক হয়,অনেকে আবার লজ্জায় মুখ ঢাকেন। অতি উৎসাহী মানুষ লজ্জা নিবারণের জন্য জোড়ালাগা অবস্থায় কুকুরকে লাঠি দিয়ে তাড়া করেন। এমনো শোনা যায় জোড়ালাগা কুকুরের লিঙ্গ ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলে।

কিন্তু আপনি জানেন কি?

জোড়ালাগা কুকুরকে বিরক্ত করলে কুকুরের কি কি ক্ষতি হতে পারে?

  1. অধিকাংশ ক্ষেত্রেই স্ত্রী কুকুরের যৌনাঙ্গের পেশি ছিড়ে যায়।
  2. স্ত্রী কুকুর তার যৌন ক্ষমতা হারিয়ে ফেলতে পারে।
  3. কখনো পুরুষ কুকুরের কিডনি কর্মক্ষমতা হারাতে পারে।
  4. স্ত্রী ও পুরুষ উভয় কুকুর কে অবর্ণনীয় কষ্ট ভোগ করতে হয়।

আমার অনুরোধ

যারা এই অমার্জনীয়, নিষ্ঠুর গর্হিত কাজ করে তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, আপনার যদি এতই লজ্জা বোধ থাকে তাহলে কুকুরের প্রজননের জন্য একটি ঘর তৈরি করে দিন তাহলে এরা আর জনসমক্ষে মেলামেশা করবে না।

আপনার ঘর আছে তাই আপনি ঘরের মধ্যেই আপনার যৌনকর্ম করেন কিন্তুু এদের তো ঘর নাই তাই এরা জনসমক্ষে কাজ সারে।বাড়িতে পরিবারের উপস্থিতিতে আপনি যখন আপনার কাজ সমাধান করেন তখন দরজা বন্ধ থাকলেও সবাই কিন্তু জানে ঘরের মধ্যে কি চলছে!

তখন আপনার লজ্জা কোথায় থাকে?তাই আসুন প্রাণির প্রতি সদয় হই হিংস্রতা ত্যাগ করি।আপনি সৃষ্টির সেরা জীব হয়ে এই ধরনের ঘৃণ্য কাজ কখনই করতে পারেন না।

ব্যাকুলাম(Baculum) বা পেনাইল বোন(Penile Bone) কি?

কুকুরের পুং লিঙ্গের তলদেশ বরাবর লম্বা ও সরু একটি হাড় থাকে।এই হাড়কে বলে ব্যাকুলাম(Baculum) বা পেনাইল বোন(Penile Bone)।

বাল্বাস গ্লান্ডিস(bulbus glandis) বা পেনাইল বাল্ব(penile bulb) কি?

কুকুরের পুং লিঙ্গের সামনের দিকে তলদেশ বরাবর মাংসপেশি নির্মিত একধরনের বিশেষ গ্রন্থি থাকে।এই গ্রন্থিকে বলে বাল্বাস গ্লান্ডিস(bulbus glandis) বা পেনাইল বাল্ব(penile bulb) অথবা “Knot”।এই বাল্বাস গ্লান্ডিস এর কারণে কুকুর মিলনের সময় আটকে যায়।
বাল্বাস গ্লান্ডিস পেনাইল বাল্ব(penile bulb)
বাল্বাস গ্লান্ডিস পেনাইল বাল্ব(penile bulb)

Dog knotting বা Copulation Tie কি?

কুকুরের মিলনের সময় প্রসস্ট্যাটিক ধাপে বাল্বাস গ্লান্ডিস গ্রন্থি বড় হতে থাকে ফলে কুকুরের পুং লিঙ্গ স্ত্রী কুকুরের যোনীতে আটকে যায়।এ অবস্থায় পুরুষ কুকুর ইচ্ছা করলেও আর পুং লিঙ্গকে যোনী হতে বের করতে পারে না। এই অবস্থাকে বলে “knotting” বা “Copulation Tie ” বাংলায় বলা হয় “জোড়ালাগা অবস্থা”।
Dog knotting বা Copulation Tie কি
শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.