জানেন সারাদিন ব্রা পরে থাকলে কি হতে পারে , রাতেরবেলা ব্রা পরে শুলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে?

লাইফ স্টাইল

 

এ কথা কম-বেশি সব মেয়েই জানেন যে স্তনের আকার একটা বয়সের পর থেকে শিথিল হতে আরম্ভ করে প্রাকৃতিকভাবেই। যাঁরা মোটামুটি নিয়ন্ত্রিত খাওয়াদাওয়া করেন, ওজন বাড়তে দেন না তেমনভাবে, ব্যায়াম করে শরীর টানটান রাখার চেষ্টা করেন তাঁদের স্তনের আকার বেশিদিন সুডৌল থাকে। উলটোদিকে আবার যাঁরা অল্প বয়স থেকে ওজন বাড়িয়ে ফেলেন, জীবনযাত্রায় তেমন কোনও নিয়ন্ত্রণও রাখতে পারেন না, তাঁদের স্তন তিরিশ পেরনোর আগেই শিথিল হয়ে পড়ে। সেই সঙ্গে এটাও ঠিক যে আপনি কোন ধরনের ব্রা ব্যবহার করছেন, তার উপরেও অনেক কিছু নির্ভর করে। সব সময়েই ট্রায়াল দিয়ে ভালো মানের ব্রা কেনা উচিত। মাস ছয়েক পরার পর সাধারণত ব্রা আলগা হয়ে যায় – তখন তা বদলে ফেলুন নিয়ম করে। ব্রায়ের ফিটিং যেন পারফেক্ট হয়, সে ব্যাপারে সুনিশ্চিত হয়ে তবেই কেনা ভালো।


কিন্তু এর বাইরেও খুব জরুরি একটা বিতর্ক থেকে যায়। তা হল, রাতে শোওয়ার সময় কি ব্রা পরে থাকলে স্তনের আকার বেশিদিন ভালো থাকে? শোনা যায়, মেরিলিন মনরো নাকি এই মতে ঘোর বিশ্বাস করতেন এবং রাতে ব্রা পরেই শুয়েছেন সারা জীবন। এর উলটোদিকের মতটাও কিন্তু যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত – আপনি যখন দাঁড়িয়ে বা বসে আছেন, তখন মাধ্যাকর্ষণ আপনার শরীরের সঙ্গে সঙ্গে স্তনের উপরেও কাজ করে। অন্তর্বাসের বন্ধন না থাকলে তা ক্রমশ নিচের দিকে নামতে থাকবে। কিন্তু বিছানায় চিৎ হয়ে বা পাশ ফিরে শুলে তো আর সে সমস্যা নেই! তাই রাতে ব্রা পরাটা বাতুলতা।


কিন্তু এমন অনেকে আছেন, যাঁরা রাতেও ব্রা পরে থাকতেই অভ্যস্ত। তাঁরা কি ঠিক করছেন না ভুল? এক কথায় এর উত্তর দেওয়া সম্ভব নয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেন, এমন কিছু বেছে নিন যার স্ট্র্যাপ বা বাস্ট খুব টাইট নয় এবং আপনার ত্বকের উপর চেপে বসবে না। বিশেষ করে যাঁরা উপুড় হয়ে শুয়ে ঘুমোতে অভ্যস্ত এবং গুরুস্তনী, তাঁরা সাপোর্ট ব্রা পরে শুলে নিশ্চিতভাবেই উপকৃত হবেন।


ব্রা না পরার কয়েকটি উপকারিতা জেনে নিন—


১ । বেশ কয়েক ঘণ্টা একটানা ব্রা পরে থাকলে সাফোকেশন হতে পারে। পিঠ ও বুকের মাংসপেশীতে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকে না । এর ফলে ব্যথা হতে পারে। ব্রা না-পরলে শরীরের ওপরের অংশে রক্ত চলাচল সুষ্ঠু ভাবে হয়।


২। ব্রা পরে থাকলে ত্বকে নোংরা জমে থাকতে পারে এবং ঘামও হতে পারে। এর ফলে রোমছিদ্র বন্ধ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। ত্বকে জ্বালাও হতে পারে। অনেকেই ব্রা খুলে ঘুমাতে ভালোবাসেন। ব্রা খুলে ঘুমালে সাফোকেশন থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এবং অবশ্যই রাতে ব্রা খুলে রিলাক্স হয়ে শোয়াই ভালো ।


৩। ক্রোনোবায়োলজি ইন্টারন্যাশনাল জার্নালে প্রকাশিত এক সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, ঘুমানোর সময় শরীরের সঙ্গে এঁটে থাকা জামা কাপড় পরে ঘুমোলে ঘুমের সময় সমস্যা দেখা দেয়। স্বভাবতই ব্রা শরীরের সঙ্গে লেগে থাকে। তাই ঘুমানোর সময় এসব পোশাক না পরাই ভালো।


৪ । ব্রা পরে থাকার ফলে স্তনের টিস্যুগুলি শক্ত হতে শুরু করে। এর ফলে স্তনে রক্ত পৌঁছতে পারে না। ব্রা না-পরলে দুটি স্তনেই রক্ত সঞ্চার ভালোভাবে হয়। ব্রা না-পরলে হাল্কা অনুভব করবেন। পাশাপাশি ডায়াগ্রামে কম চাপ পড়ে। এর ফলে স্তন সুস্থ ও সুন্দর থাকে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.